১২ অক্টোবর ২০১৭, বৃহস্পতিবার

হারিয়ে যাওয়া মেয়েটির মুখে শুধুই প্রেমের প্রলাপ

Loading...

ফরিদ মিয়া, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ঃ
চুলগুলো তার উষ্কখুষ্ক মুখে সর্বদাই হাসি। হই হুল্লোড় করে পুরো পাড়া মাতিয়ে রেখেছে। কেউ কিছু খেতে দিলেও খাচ্ছেনা। মাঝে মধ্যে দুএকটি ইংরেজী শব্দ বলছে সে। কখনও কথা বলতে বলতে অজ্ঞান হয়ে যাচ্ছে। আর বেশির ভাগ সময়ি বলছে “আমি প্রেম করি আমি ভালবাসি তোমরা ভালবাইসনা”।

 

বৃহস্পতিবার সকালে টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলার আটিয়া ইউনিয়নের গজিয়াবাড়ি গ্রামে গিয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন একটি উঠতি বয়সের মেয়ের এমন পাগলামো দেখতে অসংখ্য মানুষ ভীড় জমিয়েছে। সরজমিনে গিয়ে মেয়েটির কাছে তার নাম পরিচয় জানতে চাইলে সে গ্যানেশা, বোনের নাম মরিয়ম তার কোন ঘড় বাড়ি নেই বলে জানায়। মেয়েটি আরো বলছে ‘আমি বাচঁতে চাই”। তবে কোথায় কখন আর কিভাবে এখানে সে এলো স্পষ্ট করে কিছুই বলতে পারছেনা মেয়েটি। হাটতে হাটতে তার পায়ে ফুসকা পড়ে গেছে। স্থানিয় তারা মিয়ার বাড়িতে তাকে কয়েকজন মহিলা মিলে গোসল করিয়ে নতুন পোশাক পড়িয়েছে। তাকে কোন ভাবেই বাড়িতে ধরে রাখা যাচ্ছেনা।

 

এলাকাবাসী জানায়, প্রায় ৮ থেকে ১০ দিন যাবৎ এলাকার বিভিন্ন অলিতে গলিতে তাকে দেখা যাচ্ছে। কোথায় আর কিভাবে এখানে এলো মেয়েটি কেউ জানেনা। তবে তারা ধারণা করেছন, মেয়েটি ভালো একটি স্কুলের মেধাবী ছাত্রী। প্রেমের ফাঁদে ফেলে তাকে গনধর্ষণ করা হয়েছে। প্রতারিত হয়ে মেয়েটি হয়তো মারাত্মক ভাবে মানসিক আঘাত পেয়ে তার স্মৃতী শক্তি হারিয়ে ফেলেছে।

 

এ ব্যাপারে আটিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যার ইঞ্জি ঃ সিরাজুল ইসলাম মল্লিক জানান, আমি জরুরি কাজে উপজেলা সদরে যাওয়ার কারনে মেয়েটির কাছে যেতে পারেনি। তবে ঐই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য বাদশা মোল্লাকে মেয়েটির ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বলেছি।

Loading...

You must be logged in to post a comment Login

মতামত

প্রতিদিনের সর্বশেষ সংবাদ পেতে

আপনার ই-মেইল দিন

Delivered by FeedBurner

[X]