১১ আগস্ট ২০১৭, শুক্রবার

হরিনাকুন্ডুতে কুদ্দুস মাষ্টার বনানী নার্সারীতে স্বাবলম্বী উৎসাহীত করছে বেকার যুবকদের

Loading...

জাহিদুর রহমান তারিক,ঝিনাইদহঃ

ঝিনাইদহের হরিনাকুন্ডু উপজেলার রিশখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক কুদ্দুস মাষ্টার‘বনানী নার্সারী’ নামে একটি নার্সারী করে যেমন নিজে স্বাবলম্বী হয়ে উঠেছেন, তেমনি ভাবে এলাকার বেকার যুবকদের নার্সারী করার জন্য উৎসাহিত করে তুলেছেন। অন্যদিকে বনানী নার্সারীতে নতুন নতুন ও ভালো জাতের চারা এলাকায় ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। এ নার্সারীতে প্রতিবছর সে নতুন নতুন জাতের আম, কাঠাল ,লেবু, পেয়ারা, কতবেল, লিচু, জাম, নারিকেল, থায় লেবু, জলপাই, রানী খাশ আম সহ বিভিন্ন জাতের চারা সংগ্রহ করে নার্সারীর সোভাবর্ধন করে তুলেছে। এখন কুদ্দুস মাষ্টারের নার্সারীতে সর্ব প্রকার ও বিভিন্ন জাতের বনজ, ফলজ চারা পাওয়া যায়। দুরদূরন্ত থেকে গাছ প্রেমিকরা বনানী নার্সারীতে চারা কিনতে আসে। চারা কিনতে আসা মানুষরা জানালেন বনানী নার্সারী থেকে চারা কিনলে চারাগুলো সঠিক ও ভলো হয়।

 

 

স্থানীয়দের মধ্যে টুলু মাষ্টার বলেন, বনানী নার্সারীর নাম অনেক আগেই শুনেছি। তাই ভালো চারার সন্ধানে গত বছর চারা নিয়ে ছিলাম, এবারও নিতে এলাম ‘রানী খাশ’ আমের চারা। নার্সারীর মালিক কুদ্দুস মাষ্টার জানান, এবছর চারা বেশ ভালোই বিক্রী হচ্ছে। ব্যাপক ভাবে চারা কেনা মনে হচ্ছে মানুষ বর্তমানে মনে প্রাণে বৃক্ষ রোপন কর্মসুচিকে স্বাগত জানাচ্ছেন। তিনি এ প্রতিবেদককে আরো জানান, ১৯৯০ সাল থেকে তিনি বনানী নার্সারীর ব্যবসা করে আসছে এখন তিনি অর্থনৈতিক ভাবে যথেষ্ট স্বাবলম্বী হয়ে উঠেছেন এবং এলাকার যুবকরা তার এ উদ্ব্যেগে সাধুবাদ জানিয়ে তারাও নতুন করে নার্সারী চাষ শুরু করছে। আমি তাদের উৎসাহিত করতে পারছি ভেবে নিজের কাছেও অনেক ভালো লাগে। তাছাড়া এলাকার মানুষের বাসা বাড়ীর চারিপাশে গাছ লাগানোর জন্যও উৎসাহিত করি। বর্তমানে ১২ বিঘা লিজ নেওয়া জমির উপর শিক্ষক কুদ্দুস মাষ্টারের নার্সারী রয়েছে। নিজের জমি তেমন না থাকায় লিজ নেওয়া জমির উপরেই নির্ভর করতে হয় তাকে। তবে তিনি আশা করেন এবছর আরো ভালো টাকা উপার্জন করবেন।

 

 

 

Loading...

You must be logged in to post a comment Login

মতামত

প্রতিদিনের সর্বশেষ সংবাদ পেতে

আপনার ই-মেইল দিন

Delivered by FeedBurner

[X]