১৭ জুলাই ২০১৭, সোমবার

ঝড় বন্যা ভূমিধসে রেলওয়ের বিশেষ সতর্কতা কর্মসূচি

প্রথমবার্তা ডেস্ক, রিপোর্টঃ        ঘূর্ণিঝড়, বন্যা, ভূমিধসসহ বর্ষাকালে বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে আনতে এবং ট্রেন চলাচল নিরাপদ ও স্বাভাবিক রাখতে বিশেষ কর্মসূচি নিয়েছে বাংলাদেশ রেলওয়ে।গতকাল রবিবার রেল ভবনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এসংক্রাস্ত বিভিন্ন কর্মসূচি তুলে ধরেন রেলমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক।

 

 

 

 

 

 

 

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, বর্ষাকালে বাংলাদেশে প্রবল বৃষ্টিপাত, ঝোড়ো হাওয়া, ঘূর্ণিঝড়, পাহাড়ধস, বন্যাসহ নানা ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগের আশঙ্কা দেখা দেয়। এসব দুর্যোগে রেলপথ, সেতু, স্টেশন ভবন, প্ল্যাটফর্ম, ছাউনি, ফুট ওভারব্রিজ, ঘুমটি ঘর, গেট বেরিয়ার, সিগন্যাল কেবিন, সিগন্যাল পোল, টেলিকম ভবন, টেলিকম টাওয়ার, বিদ্যুৎ লাইন, বিদ্যুৎ উপকেন্দ্র, কারখানা, লোকোশেড, ওয়াসপিট, টার্ন টেবিল, ব্যারাক, পাম্প হাউস, গোডাউন ও অন্যান্য স্থাপনা ক্ষতিগ্রস্ত এবং ট্রেন চলাচল ব্যাহত হতে পারে। প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষয়ক্ষতি কমানো এবং নিরাপদে ট্রেন পরিচালনার জন্য বিভিন্ন কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

এ জন্য কর্মকর্তারা নিরাপদে ট্রেন পরিচালনার জন্য মাঠপর্যায়ের কর্মচারীদের সচেতন ও প্রস্তুতি নিতে বলবেন। অপারেটিং অফিসার ও পরিদর্শকদের রাতে সিগন্যাল পরিদর্শন ও ইঞ্জিন ফুট পেলট পরিদর্শন করতে হবে।

 

 

 

 

 

 

রেলপথ, রেল সেতু, কালভার্ট, সিগন্যাল মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণ করতে হবে। রেলপথের পাশে ও নিচ দিয়ে প্রবহমান জলাশয়ের পানির সহজ নাব্যতার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় সংস্কার করা হয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

বন্যাপ্রবণ এলাকায় রেলপথ ও রেল সেতুতে সার্বক্ষণিক টহল দেওয়া হচ্ছে। রেললাইনে গাছপালা ভেঙে অবরোধ সৃষ্টি হলে তা দ্রুত অপসারণ করা হচ্ছে।

 

 

 

 

 

 

খোয়া, পাথর, মালপত্র বা জ্বালানি পরিবহনের জন্য বালাস্ট ট্রেন প্রস্তুত রাখা হচ্ছে। জরুরি প্রয়োজনে ব্যবহারের জন্য বাঁশ, চাটাই, রশি, স্টিলওয়্যার, বালু, বোল্ডার, পলিব্যাগ, সিমেন্ট ব্যাগ এবং অন্যান্য সামগ্রী সংগ্রহ ও মজুদ রাখা হচ্ছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

ঢাকা, চট্টগ্রাম, পাকশী ও লালমনিরহাট বিভাগীয় ট্রেন কন্ট্রোল অফিসে  এবং সিআরবি (চট্টগ্রাম) ও রেল ভবন (রাজশাহী) জোনাল কন্ট্রোল অফিসে অপারেটিং অফিসারদের তত্ত্বাবধানে জরুরি মনিটরিং সেল স্থাপন করা হয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

মাঠপর্যায়ে প্রকেৌশল বিভাগের কর্মচারী ও কর্মকর্তারা রেললাইন, ব্রিজ-কালভার্ট এবং নদ-নদীর পানির অবস্থা প্রতিনিয়ত পর্যবেক্ষণ করছেন।

You must be logged in to post a comment Login



মতামত

প্রতিদিনের সর্বশেষ সংবাদ পেতে

আপনার ই-মেইল দিন

Delivered by FeedBurner