ঢাকা, শনিবার, ১৬ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং | ২রা পৌষ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

শুধু ভালোবাসা সম্পর্ক টেকাতে যথেষ্ট নয়

প্রথমবার্তা ডেস্ক, রিপোর্টঃ       নারী-পুরুষের জীবনে প্রেম-ভালোবাসা থাকবেই, যদিও বিষয়টি আপেক্ষিক। তারপরও ভালোবাসার সম্পর্ক নারী-পুরুষকে অনেক বেশি চাঙ্গা করে রাখে। বলা হয়, সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে ভালোবাসার চেয়ে ভালো উপাদান আর নেই। কিন্তু শুধু ভালোবাসা দিয়ে কোনো সম্পর্ক টিকিয়ে রাখা যায়?

 

 

 

 

যাঁরা প্রেম-ভালোবাসার মতো মধুর সম্পর্কে নিজেকে জড়িয়েছেন, তাঁদের অনেকের ধারণা, একমাত্র ভালোবাসা পারে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে। কিন্তু বোল্ডস্কাই বলছে, শুধু ভালোবাসা সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার জন্য যথেষ্টে নয়, দরকার আরো একটি জিনিসের। চলুন জেনে নিই, কী সেই জিনিস।

 

 

 

 

১. গবেষণায় দেখা গেছে, সম্পর্ক দীর্ঘস্থায়ী করার ক্ষেত্রে পারস্পরিক সম্মানটাই আসল। তবে অনেকে সম্মানের গুরুত্ব সম্পর্কে বুঝতে পারেন না।

 

 

 

 

২. আকর্ষণ দুজনকে একত্র করতে পারে। সম্পর্কের রসায়ন একজন অন্যজনের সঙ্গ উপভোগ করতে সাহায্য করে। জীবনের উত্থান-পতনে ভালোবাসা সম্পর্ক টেকাতে সাহায্য করে, কিন্তু এটি সব নয়। সম্পর্ক জীবনভর টিকিয়ে রাখতে শ্রদ্ধাবোধ প্রয়োজন। পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ পারে একটি সুন্দর সম্পর্ক সফল পরিণতির দিকে এগিয়ে নিতে।

 

 

 

 

৩. অনেকে প্রশ্ন করেন, শ্রদ্ধাবোধ কী? কেন সঙ্গীকে শ্রদ্ধা দেখাতে হবে? আসলে শ্রদ্ধাবোধ হলো সুন্দর এক অনুভূতি, যা প্রতিমুহূর্তে দুজনকে অদ্ভুত ভালোলাগা উপহার দেয়।

 

 

 

 

৪. সঙ্গীর প্রতি যদি আপনার শ্রদ্ধাবোধ থাকে, তাহলে কখনো তাঁকে আপনার খেলনা মনে হবে না। আপনার কাছে তিনি গুরুত্বপূর্ণ মানুষ হিসেবে থাকবে।

 

 

 

 

৫. সঙ্গীর প্রতি শ্রদ্ধাবোধ আপনাকে মনে করিয়ে দেবে যে আপনি তাঁকে নিয়ন্ত্রণ করছেন না। যখন আপনি আপনার সঙ্গীকে অযাচিতভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে চাইবেন, তখন হয়তো এতে হিতে বিপরীত হওয়ার আশঙ্কা থেকে যায়।

 

 

 

 

৬. সম্পর্কের প্রতি আপনাকে সচেতন করে জাগিয়ে তুলবে শ্রদ্ধাবোধ। আপনি কী করছেন, সেটিও বুঝতে পারবেন।

 

 

 

 

৭. জীবনে ভালোবাসার একটি নিজস্ব ভূমিকা আছে। এটি আপনাকে সুখ, আনন্দিত আর উদ্বেলিত করে থাকে। কিন্তু সেখান থেকে শ্রদ্বাবোধ আপনার সম্পর্ক বহুদূর নিয়ে যাবে।

 

 

 

 

৮. আপনি যাঁকে ভালোবাসেন, তাঁর প্রতি যদি আপনার সম্মান থাকে, তাহলে আপনি তাঁর সঙ্গে রেগে কথা বলতে পারবেন না। রাগ সম্পর্কে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে।

Translate »